24 ALL BANGLADESH NEWS

‘ক্রিকেটের বাইরেও কোহলির জীবন আছে’

খেলা ডেস্ক,

6

ভারতীয় ক্রিকেট দল যখন অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে স্বাগতিকদের সঙ্গে টেস্ট সিরিজ লড়বে, ঠিক তখনই ব্যক্তিগত জীবনে গুরুত্বপূর্ণ এক উপলক্ষের সাক্ষী হবেন বিরাট কোহলি। বাবা হওয়ার আনন্দে ভাসবেন তিনি। জীবনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এ লগ্নে ভারত অধিনায়ক তাঁর স্ত্রী আনুশকা শর্মার পাশে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আর তাই প্রথম টেস্টের পর তিনি ফিরে যাবেন দেশে। কোহলির এই ‘পিতৃত্বকালীন ছুটি’ নিয়ে এরই মধ্যে শুরু হয়েছে নানামুখী বিতর্ক।

সন্তানের জন্মের মুহূর্তে স্ত্রীর পাশে থাকাটা জরুরি, নাকি গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেট সিরিজে দেশকে নেতৃত্বে দেওয়া জরুরি—এ নিয়ে চলছে নানামুখী বিতর্ক। অনেকেই কোহলির দেশে ফিরে আসার বিরোধিতা করছেন। কেউ কেউ আবার মনে করছেন, প্রথম সন্তান জন্মের মুহূর্তে কোহলি ছুটি নিয়ে ঠিকই করেছেন। কপিল দেব, সুনীল গাভাস্কার, অজয় জাদেজা থেকে শুরু করে অনেকেই এই ছুটি নিয়ে বাঁকা কথা বলেছেন। আবার অনেককে নিজের পাশেও পেয়েছেন কোহলি। এই দলে আবার রয়েছেন অস্ট্রেলিয়ানরা। সিরিজ শুরুর আগেই যেমন কোহলির সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়া দলের কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার। কোহলির তারিফ করেছেন সাবেক অধিনায়ক স্টিভ ওয়াহও। এবার ল্যাঙ্গার-ওয়াহর সুরে সুর মেলালেন স্টিভ স্মিথও।স্মিথের মতে, ক্রিকেটের বাইরেও তারকাদের জীবন আছে। আর সে সিদ্ধান্তের প্রতি সম্মান জানানো উচিত, ‘কোহলি থাকছে না, কোনো সন্দেহ ছাড়াই ভারতের জন্য বেশ বড় একটা ক্ষতি এটা। ও একজন বিশ্বমানের খেলোয়াড়। আমরা সবাই জানি ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলতে কতটা পছন্দ করে। কিন্তু দিন শেষে সে-ও একজন মানুষ। ক্রিকেটের বাইরে ওরও জীবন আছে। পারিবারিক জীবন, যেটা কিনা বাড়তে চলেছে। প্রথম সন্তানের জন্মের সময়ে ও থাকতে চেয়েছে। ওর সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাতেই হয়।

স্মিথকে পাশে পাচ্ছেন কোহলি।

অস্ট্রেলিয়ায় বরাবরই দুর্দান্ত বিরাট কোহলি। ২০১৫ ও ২০১৮ সালে ভারত সম্পূর্ণ দুই ধরনের সময় কাটিয়েছিল অস্ট্রেলিয়ায়। কিন্তু কোহলি দুবারই ছিলেন দুর্দান্ত। এ দুবারই অস্ট্রেলিয়ায় গিয়ে বড় রান করেছেন তিনি। শেষবার তো অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে অধিনায়ক হিসেবে সিরিজ জিতে গড়েছেন ইতিহাস।

এবার পুরো অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট অপেক্ষায় ছিল কোহলির লড়াই দেখতে। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে চারটি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ খেলবে অস্ট্রেলিয়া ও ভারত। কিন্তু কোহলি খেলবেন শুধু এক টেস্ট। স্মিথরা তাই মানসিকভাবে টেস্ট সিরিজের আগে বেশ এগিয়ে, কোহলি যে থাকছেন না তিন টেস্টে!

Leave A Reply

Your email address will not be published.